ছড়াঃ বিকেল নামে - উপাসনা পুরকায়স্থ

we(Kj bv(g
উপাসনা পুরকায়স্থ


বাড়ির সবাই আলসে ঘুমে
কাটায় নিঝুম দুপুরবেলা,
বন্ধু তুতুল নাড়ত কড়া
বলত, “আয় না, করব খেলা।”
অমনি বেরোই বেড়াল-পায়ে
তারপরে ছুট, কে আর থামে
ভরদুপুরেই দু’চোখ জুড়ে
আমার তখন বিকেল নামে।
পেরিয়ে গলি ছুটতে ছুটতে
বাহারপুরের মেলার মাঠে,
ডাংগুলি আর চু-কিত-কিত
খেয়ালখুশির সময় কাটে।

সুয্যিঠাকুর যখন পাটে
ফিরছি বাড়ির পেছন দিয়ে,
দূরের থেকে দেখতে পেতাম
ঝাপসা আলোয় কেউ দাঁড়িয়ে!
জবর কড়া শাসন মায়ের
থমকে দাঁড়াই, ভয়েই মরি
কী আর করি, ভাবছি পাশের
গাছটাকে নয় জড়িয়ে ধরি।
ঘামছি যখন দরদরিয়ে
ঠাম্মি আমার হাতটি ধরে,
আগলে নিয়ে বুকের খাঁচায়
চললে যে তার নিজের ঘরে।

বুজলে দু’চোখ দেখছি আজও
আমার খুঁজে মা খিড়কি দোরে,
ঠাকুরঘরে ঠাম্মির ছায়া
ধূপের গন্ধ আলোর ভোরে।
_____

অলঙ্করণঃ মানস পাল

No comments:

Post a Comment