ছড়াঃ খাই খাই - সৈকতা দাস



খাচ্ছি সবই তবুও দেখো
পাচ্ছে খালি খিদে,
উচ্ছের টক, আমড়ার ঝাল
ভাত দিয়ে খাও বোঁদে।
চিতলমাছের কাবাব ছেড়ে
বেগুন-মুলোর পোস্ত,
চন্দ্রালোকে ছাদে বসে
খাওয়ার মজাই মস্ত।
তোমরা শুধু মিছেই আমায়
পেটুকরাম বল,
কার্তিকেতে বৃষ্টি ভিজেই তো
এই হালটি হল।
শুঁটকিমাছের মালাইকারি
রান্না কি আর জানো?
তেলাকুচির তেল-ঝালেতে
কান দিয়ে কি শোনো?
আলু দিয়ে টক খেলাম যখন
বলব কী আর ভাই
চোখের সামনে সারি সারি
সর্ষে দেখতে পাই।
খাচ্ছি তবুও মুরগি-ভাতে
হাড়গুলো যায় গোনা,
তোমরা শুধু হিংসে করে
বলছ আমায় কানা!
শোনো, আমি খাইয়ে বড়ো
নাম দিয়ে লোক চিনবে,
মন্ডামিঠাই, পোস্ত জবাই
ভালোবেসেই করবে।
দিনগুলি সব আসছে তেড়ে
একটু সবুর সও,
ততক্ষণে রান্না চাপাই
ডাইনোসরের পোলাও।

_____

No comments:

Post a Comment