ছড়াঃ শিম্পাঞ্জির ফোনঃ সুজাতা চ্যাটার্জী

শিম্পাঞ্জির ফোন

সুজাতা চ্যাটার্জী


খাঁচার ভেতর দিব্যি বসে,
শিম্পাঞ্জি ঘুমোয় কষে।
বোরিং বড়ো লোকের হবি,
কেবল দেখ, তুলছে ছবি!
এমন সময় ভীষণ গোলে,
শিম্পাঞ্জি চোখটি খোলে।
গেল গেল রব উঠেছে,
হাত থেকে কার ফোন ছুটেছে!
স্মার্ট ফোন সে বেজায় ভালো,
স্ক্রিনের ’পরে জ্বলছে আলো।
শিম্পাঞ্জির পায়ের কাছে,
ছিটকে এসে থমকে আছে।
জমবে এবার দারুণ মজা,
ফোন নিয়ে সে বসল সোজা।
হাত ছোঁয়ালে স্ক্রিনের ’পরে,
নাচছে কারা, গাইছে জোরে!
ফুর্তি ভীষণ জাগছে প্রাণে,
ফিরিয়ে দেওয়ার নেই তো মানে।
সবাই কত লোভ দেখাল,
ভর্তি ঝুড়ি ফল আনাল।
লাভ হল না কিচ্ছু তাতে,
ফোনখানা তার রইল হাতে।
যার ফোন সে ছাড়ল আশা,
দুঃখের তার নেই যে ভাষা!
“পাবে না আর,” এমন বলে
সবাই যখন যাচ্ছে চলে,
ঠিক তখনই চেঁচিয়ে জোরে,
শিম্পাঞ্জি ফোনটি ছোড়ে।
হঠাৎ এমন রাগল কেন?
ভয় পেয়েছে ভীষণ যেন!
সবাই দেখে দৌড়ে আসে,
ফোনটি তুলে ভীষণ হাসে।
শিম্পাঞ্জির খেলার ফলে,
সেলফি তোলার ক্যামটি চলে!
_____

অঙ্কনশিল্পীঃ সুজাতা চ্যাটার্জী

2 comments:

  1. বাহ, বেশ মজার এবং যুগোপযোগী হয়েছে।

    ReplyDelete
  2. বাঃ,মজার বেশ।

    ReplyDelete