ছড়াঃ ভূত ছড়াকারঃ শঙ্কর দেবনাথ




চাঁদের আলোয় ছাদের ’পরে
সেদিন রাতে বসে,
লেখার তৃষায় ছড়ার বিষয়
যাচ্ছি খুঁজে গো সে।
হঠাৎ কে সে একটু কেশে
বলল নেকো-স্বরে,
ও ছড়াকার, শুনছি তোমার
কথায় ছন্দ ঝরে।
এই আমি ভাই যারপরনাই
চেষ্টা করেও শেষে,
একটা ছড়া লিখতে ধরা
খেলাম মিলে এসে।
ভূতের সাথে জুতের মিলন
ঘটিয়ে দিলাম সোজা,
হইল না ভুল, রইল না খুঁত
পড়েই গেল বোঝা।
মানুষ ভারি বেজুত তারি
পাচ্ছি না মিল ঘেঁটে,
ফানুস দিলেই চমকে পিলে
যাচ্ছে কেবল ফেটে।
তাই বলি ভাই একটু আমায়
দাও বলে এই মিলে,
ছন্দ-ভাবে দাঁড়িয়ে যাবে
শব্দটা কী দিলে?
না যেও না, ভয় পেও না
বোঝাও ব্যাপারটা তো,
ভূত মিলে যায় অবলীলায়
মানুষ মেলে না তো।
কী বলি আর, ভূত ছড়াকার
মানুষ বড়ো পাজি,
বিরোধ ভুলে পরাণ খুলে
মিলতে সে নয় রাজী।

_____

No comments:

Post a Comment