অণুগল্পঃ মিষ্টিমুখঃ বিভাবসু দে




সাতসকালে কলিং-বেলের শব্দে দরজা খুলতেই দেখি বাইরে ধীমানদা দাঁড়িয়ে। মুখে বেশ চওড়া একখানা দন্তকান্তি স্মাইল!
“গুড মর্নিং, মাই ডিয়ার অজিত!” বলেই একেবারে জড়িয়ে ধরে বেশ একটা জম্পেশ কোলাকুলি সেরে ফেলল।
“হ্যাঁ হ্যাঁ, গুড মর্নিং। তা এত সেজেগুজে? কী ব্যাপার?”
“আরে তেমন কিছু না। এই নে, আগে মিষ্টিগুলো ধর, তারপর বলছি।” বলেই এক হাঁড়ি রসগোল্লা এগিয়ে দিল আমার দিকে। ধীমানদার হাতে রসগোল্লা! স্বপ্ন নয় তো? নিজেকে নিজেই একবার চিমটি কেটে দেখে নিলাম। যে ব্যক্তি জীবনে কাউকে এক কাপ চা খাওয়াল না, সে আজ বাড়ি বয়ে এসে মিষ্টি খাওয়াচ্ছে! ব্যাপারটা কী? কিছু গোলমাল নেই তো?
“না না, বিশেষ কিছু না।” নিজে থেকেই বলতে লাগল ধীমানদা। “আসলে এই ক’দিন হল একটা নতুন চাকরিতে ঢুকেছি, তাই ভাবলাম সবাইকে একটু মিষ্টিমুখ করিয়ে সুখবরটা জানাই।”
“বাহ্, দারুণ খবর তো! তা কী চাকরি?”
“ওই যে স্যুইট ড্রিমস কোম্পানি, নাম শুনেছিস নিশ্চয়ই, তাতেই সেলস ম্যানেজার। বেতনটাও বেশ ভালোই দিচ্ছে।”
নামটা যদিও চেনাশোনা ঠেকল না, তবুও ঘাড় নেড়ে বললাম, “জব্বর! অভিনন্দন, ধীমানদা!”
মনে মনে বেশ খুশিই হয়েছিলাম। তবে ওর চাকরির জন্যে ততটা নয় যতটা ওর মতো হাড়কেপ্পনের টাকায় মিষ্টিমুখে।
সেদিন আর বেশিক্ষণ বসল না ধীমানদা, চা-টা খেয়েই উঠে পড়ল। ওর নাকি আরও কয়েকজনের সঙ্গে দেখা করা বাকি।
সারাটা দিন ধীমানদার রসগোল্লায় বেশ রসিয়ে রসিয়ে মিষ্টিমুখ করে বিকেল নাগাদ চায়ের কাপটা নিয়ে বসলাম বারান্দায়। মনমেজাজটা বেশ ফুরফুরে। এমন সময় হঠাৎ এক অপরিচিত ভদ্রলোক এসে ঢুকলেন।
“আজ্ঞে, আপনিই অজিত বসু?”
“হ্যাঁ, বলুন।”
“এই যে আপনার বিল, তিনশো টাকা।”
“কীসের বিল?”
“সকালবেলা আপনি আমাদের স্যুইট ড্রিমসের ‘বাড়ি বসে মিষ্টিমুখ’ সার্ভিসে যে একহাঁড়ি রসগোল্লা কিনেছিলেন, তারই বিল। আমাদের সেলস ম্যানেজার ধীমানবাবু নিজেই তো নিয়ে এসেছিলেন।”
পাশের টেবিলে তখনও মুখ হাঁ করে পড়ে আছে রসগোল্লার খালি হাঁড়িটা। চায়ে ডোবানো বিস্কিটের আধখানা আমার হাত থেকে টুপ করে খসে তলিয়ে গেল চায়ের কাপে।


_____

6 comments:

  1. দন্তকান্তি স্মাইল!
    দারুণ মজা লেগেছে... বেস্টি

    ReplyDelete
  2. চরিত্র টা একদম ঠিক মিলালি।

    ReplyDelete
  3. আমি কিপটে ....ধন্যবাদ ভাই ����
    ভালো লিখসত

    ReplyDelete
  4. শ্রদ্ধেয় ধীমান দা........

    ReplyDelete
  5. বেশ মজাদার ,লেখক বিভাবসু দে কে অনেক ধন্যবাদ

    ReplyDelete
  6. চমৎকার সমাপ্তি এবং দৃশ্য বর্ণনা।

    ReplyDelete