ছড়াঃ হাসিঃ সুদীপ্ত বিশ্বাস



কেউ বা হাসে হো হো করে, কেউ বা হাসে হি হি
সাপের হাসি হিসহিসানি ঘোড়ার হাসি চিঁহি।
কারও হাসি ভীষণ সরু, কারও হাসি মোটা
ঘর ফাটিয়ে হাসলে পরে অট্টহাস্য ওটা।
কেউ বা হাসে গোঁফের তলে, কেউ বা হাসে অল্প
কেউ বা হাসে প্রাণ খুলে খুব, দিলখোলা তার গল্প।
কারও হাসি সরল খুবই, কারও হাসি মিষ্টি
মনটা হাসে খুব গরমে যখন নামে বৃষ্টি।
ফকির হাসে ফোকলা দাঁতে ভগবানের ভরসায়
মেঘের ফাঁকে সূর্য হাসে প্যাচপ্যাচানি বর্ষায়।
কেউ বা হাসে বুক ফুলিয়ে, কেউ বা হাসে মুচকি
খিলখিলিয়ে শুধুই হাসে পাশের বাড়ির পুচকি।
ছেলের মুখে দেখলে হাসি বুকটা ভরে হর্ষে
হাসছে মানুষ চিন-জাপানে, হাসছে ভারতবর্ষে।
হাসি মানেই দাঁতের রাশি, হাসি মানেই গল্প
হাসি পেলেই হাসতে পার, হেসো না কেউ অল্প।

_____

No comments:

Post a Comment