ছড়াঃ খুশির পুষিঃ পঞ্চমী গোল


ছোট্ট বিড়াল ছানা এনে ঐ ও পাড়ার খুশি,
মাকে ডেকে বললে শোনো নাম রেখেছি পুষি।
এবার থেকে যা খাই আমি এও খাবে সঙ্গে,
দেখবে সবাই নাচবে পুষি কেমন মধুর রঙ্গে।
বললে মা তার কোথা থেকে পেলি বিড়াল ছানা,
এ তো দেখি একটা চোখে দেখতে লাগছে কানা।
পাও দেখি চলছে টেনে শুধু মিউ ডাকে,
করব কী বল এখন নিয়ে খোঁড়া বিড়ালটাকে?
মায়ের কথায় খুশির কেমন কষ্ট লাগে মনে,
ভাবছে যত চোখ ফেটে জল আসছে ক্ষণে ক্ষণে।
মায়ের আঁচল টেনে খুশি বলল মাকে ধরে,
আমি যদি এমন হতাম থাকতে কেমন করে?
জড়িয়ে বিড়াল বুকেতে তার ছোট্ট খুশি কাঁদে,
বাবা এসে বলল মাকে পড়েছি কী ফাঁদে!
মেয়ে যখন চায় বাঁচাতে অনাথ বিড়াল ছানা,
ভালোই সে তো তুমি কেন করছ তাকে মানা?

___

No comments:

Post a Comment